‘খালেদার মুক্তিতে আর কোন বাধা নেই’ তবে…

কারাগারে থাকা বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কুমিল্লায় দায়ের করা নাশকতার দুটি মামলায় ছয় মাসের জামিন পেয়েছেন। যার ফলে তার মুক্তিতে আর কোনো আইনগত বাধা নেই বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন।

তবে জামিন পেলেও সরকারের যদি আরও কোনো অসৎ উদ্দেশ্য থাকে তাহলে মুক্তি পাবেন না খালেদা জিয়া বলে মনে করেন চেয়ারপারসনের এই আইনজীবী। বলেন, ‘হয়তো তাকে আরও অন্য কোনো মামলায় অ্যারেস্ট দেখাবে।’

এর আগে সোমবার (২৮ মে) বিচারপতি এ কে এম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি জে বি এম হাসানের হাইকোর্ট বেঞ্চ কুমিল্লার দুই মামলায় খালেদা জিয়াকে ছয় মাসের জামিন দেন। নড়াইলের আরেকটি মামলা উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করে দেন।

এ আদেশের পর ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন সাংবাদিকদের বলেন, ‘অফিসিয়ালি খালেদা জিয়া তিনটি মামলায় অ্যারেস্ট আছেন। একটা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট, যেটাতে আগেই জামিন পেয়েছেন। আর বাকি দুইটায় আজ জামিন হয়েছে। এখন অন্য কোনো মামলায় শ্যোন অ্যারেস্ট নেই। আজকের আদেশের পর খালেদা জিয়ার মুক্তিতে আইনগত বাধা নেই। তবে এরপর সরকারের যদি অসৎ উদ্দেশ্য থাকে তাহলে কোনো মামলায় অ্যারেস্ট দেখাবে।’

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. মো. বশির উল্লাহ বলেন, দুইটি মামলায় ছয় মাসের জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। তবে নড়াইলের মামলা উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করেছেন।

কারাগারে থাকা বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কুমিল্লায় দায়ের করা নাশকতার দুটি মামলায় ছয় মাসের জামিন পেয়েছেন। তবে নড়াইলে দায়ের করা মানহানির মামলায় তার জামিন আবেদন উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করে দিয়েছে উচ্চ আদালত।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের দণ্ড হওয়ার পর থেকে কারাগারে বিএনপি নেত্রী। গত ১২ মার্চ তাকে চার মাসের জামিন দিয়ে হাইকোর্টের আদেশ আপিল বিভাগ বহাল রাখে ১৬ মে। তবুও মুক্তি পাননি বিএনপি নেত্রী। কারণ আরও পাঁচটি মামলায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতার পরোয়ানা ছিল। যার মধ্যে তিনটি মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

২০১৫ সালে বিএনপির সরকারবিরোধী আন্দোলনের সময় ৩ ফেব্রুয়ারি কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে বাসে পেট্রল বোমা হামলা চালিয়ে হত্যা করা হয় আটজনকে। এই ঘটনায় করা হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে আলাদা মামলায় বিএনপি নেত্রীকে করা হয়েছে হুকুমের আসামি।

এর বাইরে স্বাধীনতাবিরোধীদের গাড়িতে জাতীয় পতাকা তুলে দেয়া, ১৫ আগস্ট ভুয়া জন্মদিন পালনের অভিযোগ করা মামলাতে ১৭ মে তাকে গ্রেপ্তার দেখানোর আদেশ দিয়েছে ঢাকার দুটি আদালত। আর মুক্তিযদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের অভিযোগে নড়াইলে করা মামলায় গত ৮ মে খালেদা জিয়ার জামিন নাকচ হয়।

এসব মামলায় স্ব স্ব আদালতে আবেদন না করে উচ্চ আদালতে দুটি আবেদন করেন বিএনপি নেত্রী। মধ্যে তিনটি মামলায় আবেদন হয় ২০ মে।

এর মধ্যে পেট্রলবোমায় হত্যা মামলায় জামিন চেয়ে করা আবেদনের ওপর শুনানি হয় বৃহস্পতিবার। রবিবার বিচারপতি এ কে এম আসাদুজ্জামান ও জে বি এম হাসানের বেঞ্চে কুমিল্লায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে করা মামলার পাশাপাশি শুনানি হয় নড়াইলের মামলার ওপর।

খালেদা জিয়ার পক্ষে ছিলেন খন্দকার মাহবুব হোসেন, এজে মোহাম্মদ আলী, জয়নুল আবেদীন, মাহবুব উদ্দীন খোকন, মাসুদ রানা।

জামিন দেয়ার বিরোধিতা করে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

গত ১৬ মে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির পাঁচ বছরের সাজার মামলায় খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেওয়া জামিন বহাল রাখে আপিল বিভাগ। একইসঙ্গে সাজার বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল আগামী ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ দেয় সর্বোচ্চ আদালত।

About newsroom

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

৩১ টাকার চিকেন ফ্রাই ১৩৯ টাকায় বিক্রি; কেএফসিকে ১ লক্ষ টাকা জরিমানা

অধিকদামে খাবার বিক্রি, রান্নায় অপরিশোধিত পানি ব্যবহার ও পোড়া তেলে খাবার ভাজার অপরাধে রাজধানীর ধানমন্ডির ...

‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’ মহাকাশে পাঠিয়ে ফিরে এসেছে ফ্যালকন ৯ রকেট (ভিডিও)

কয়েক ঘণ্টা আগে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণের মাধ্যমে মহাকাশে যায়গা করে নিয়েছে বাংলাদেশ। শুক্রবার দিবাগত রাত ...

Powered by Dragonballsuper Youtube Download animeshow